মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

সিটিজেন চার্টার

সিটিজেন চার্টার সমবায়

  • সমবায় একটি নিবন্ধনকৃত এবং গনতান্ত্রিক শৃঙ্খলায় পরিচালিত অর্থনৈতিক সংগঠন যার সামাজিক সম্পৃক্ততা রয়েছে।
  • নিবন্ধনবাঅনুমোদন ব্যতিত কোন সংগঠন কিংবা সমিতি বা সংঘের নামে সমবায়বা কো-অপারেটিভ শব্দ ব্যবহার করা যায় না এবং কেউ যদি এই আইনটি লংঘন করেণতবে দায়ী ব্যক্তি অনধিক এক বৎসরের কারাদন্ডে বা অনধিক পাঁচ হাজার টাকাঅর্থদন্ডে বা উভয় দন্ডে দন্ডিত হবেন।
  • একটি প্রাথমিক সমবায় সমিতি নিবন্ধকের ক্ষেত্রে নূন্যতম ২০(কুড়ি) জন ব্যক্তি সদস্যের প্রয়োজন।
  • কেন্দ্রীয় সমবায় সমিতি অর্থাৎএমন একটি সমবায় সমিতি, যার সদস্য হবে একইরূপ অন্ততঃ ১০(দশ) টি প্রাথমিক সমবায় সমিতি।
  • জাতীয় সমবায় সমিতি অর্থাৎএমন একটি সমবায় সমিতি, যার সদস্য হবে একই উদ্দেশ্য সম্বলিত১০(দশ)টি কেন্দ্রীয় সমিতি।
  • সমবায় সমিতি নিবন্ধনের উদ্দেশ্যে নির্ধারিত ফরমে, নির্ধারিত পদ্ধতিতে, নির্ধারিত ফি, সমিতিরপ্রস্তাবিত উপ আইনের তিনটি কপি এবং নির্ধারিতঅন্যান্য কাগজপত্রসহ সংশ্লিষ্ট নিবন্ধকের নিকট আবেদপত্র দাখিল করতে হবে।সংশ্লিষ্ট নিবন্ধক ৬০ দিনের মধ্যে নিবন্ধনকার্য সম্পাদন করবেন অথবা৩০দিনের মধ্যে সংশ্লিষ্টদের নিকট প্রয়োজনীয় তথ্য দাখিলের পরামর্শ দিতেপারেন।
  • নিবন্ধন সনদঃ পেশকৃত নিবন্ধনের কোন আবেদন মঞ্জুর হলে নিবন্ধকআবেদনকারীর বরাবরে নির্ধারিত ফরমে একটি নিবন্ধন সনদ ইসু করবেন এবং এ সনদউক্ত সমিতির নিবন্ধনের ব্যাপারে চুড়ান্ত প্রামান্য দলিল হিসেবে গণ্য হবে।
  • প্রত্যেক সমবায় সমিতি একটি সংবিধিবদ্ধ সংস্থা যার স্থায়ী ধারাবাহিকতা আছে।
  • সমবায় আইন, উপ-আইনপালন শর্তে সমবায় সমিতি চুড়ান্ত কতৃত্ব তার সাধারণ সভার উপর বর্তাবে।
  • প্রত্যেক সমবায় সমিতির ব্যবস্থাপনার দায়ীত্ব আইন, বিধি, উপবিধি মোতাবেকগঠিত একটি ব্যবস্থাপনা কমিটির উপর ন্যস্থথাকবে এবং সাধারণ সভায়অনুমোদিতকার্য উক্ত কমিটি সম্পাদন করবে।
  • সমবায় আইন অনুযায়ী প্রত্যেক সমবায় সমিতিকে কমপক্ষে ৭(সাত)টি রেজিষ্টার হালনাগাদ সংরক্ষণ করতে হবে।
  • সাধারণ সভার অনুমতি ব্যতিত কোন সমবায় সমিতির স্থাবর সম্পতি এবংযন্ত্রপাতি বা যানবাহনের ন্যায় সম্পত্তি যা সমিতির মূলধনের অংশ তা বিক্রয়, বিনিময় যা ৫(পাঁচ)বৎসরের অতিরিক্ত সময়ের জন্য ইজারা প্রদান করা যাবে না।
  •  এর ব্যতয় ঘটলে শাস্তিযোগ্য অপরাধ।
  • সমিতির হিসাব ও কার্যক্রম নিবন্ধক কর্তৃক মনোনীত বা প্রতিষ্ঠান দ্বারা বাৎসরিক অডিট কার্য সম্পাদন করতে হবে।
  • সমিতির কার্যক্রমে সংক্ষুব্দ হলে ব্যবস্থপনা কমিটির এক তৃতীয়াংশ সদস্যঅথবা সাধারণ সদস্যের ১০% নিবন্ধকের নিকট তদন্তের আবেদন করতে পারেন।
  • সমিতির কার্যক্রম, অবসায়ন অথবা নির্বাচন পরিচালনা সংক্রান্ত বিষয়ে কোনসংক্ষুব্দ ব্যক্তি সংশ্লিষ্ট নিবন্ধক এর নিকট বিধি মোতাবেক সালিশ দাবী করতেপারেন।(ডিসপ্যোট)
  • সালিশের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ৩০দিনের মধ্যে আপিল করতে পারেন।
  • সমবায় আইন ভঙ্গকারী কোন ব্যক্তির৫০০০(পাঁচ হাজার) টাকা জরিমানা বা ৬ মাসের কারাদন্ড হতে পারে।
  • সমবায় সংক্রান্ত যেকোন তথ্য বা পরামর্শের প্রয়োজন হলে যে কোন সমবায় কার্যালয়ে কোন ব্যক্তি পরামর্শ করতে পারেন।
  • সমবায়দের প্রশিক্ষণের জন্য বাংলাদেশ সমবায় একাডেমি কোটবাড়ি কুমিল্লা ব্যতিত দেশের বিভিন্ন স্থানে আরো ৯টি আঞ্চলিক সমবায় প্রশিক্ষণ ইনষ্টিটিউট রয়েছে।
  • কোন কারনে সদস্যগণ সমিতি পরিচালনা করতে অনিহা প্রকাশ করলে মোট সদস্যের ৩ভাগের ২ভাগ সদস্যের মতামতের ভিত্তিতে সমিতিটি গুটিয়ে ফেলার জন্য অথবা গোটানোর আদেশ প্রদত্ত সমিতি পুনরায় চালু কারার জন্য নিবন্ধক বরাবর আবেদন করতে পারবেন।

    পাতা

    সিটিজেন চার্টার

    নিবন্ধন ও উপ আইন সংশোধন
    বৈধ উপায়ে নিজেদের আর্থ সামাজিক অবস্থার উন্নয়নের জন্য নূন্যতম ২০(কুড়ি) জন একক ব্যক্তি সমন্বয়ে গঠিত প্রাথমিক সমবায় সমিতি নিবন্ধন প্রদান করা হয়।
    সমবায় সমিতি নিবন্ধনের সময় সমবায় সমিতি পরিচলনার সুনির্দিষ্ট বিধানাবলী সমন্বিত উআইন নিবন্ধন করা হয় এবং পরবর্তীতে প্রয়োজনবোধে উপ আইনের সংশোধনী নিবন্ধন করা হয়।
    সরকারী কর্মসূচীর আওতায় বিত্তহীন, ভূমিহীন এবং আশ্রয়হীনদের দারিদ্র বিমোচনের লক্ষ্যে গঠিত প্রাথমিক সমবায় সমিতি নিবন্ধনের ৫০(পঞ্চাশ) টাকা এবং অন্যান্য প্রাথমিক সমবায় সমিতি নিবন্ধনের জন্য ৩০০(তিন)শত টাকা নিবন্ধন ফি জমা দিতে হয়।
    দারিদ্র বিমোচনের লক্ষ্যে স্বেচ্ছায় বা সরকারী কর্মসূচীর আওতায় গঠিত প্রাথমিক সমিতি নিবন্ধনের জন্য কমপক্ষে তিন হাজার টাকা, ক্রেডিট কো-আপারেটিভ সোসাইটি নিবন্ধনের জন্য কমপক্ষে এক কোটি টাকা এবং প্রাথমিক সমিতি নিবন্ধনের জন্য কমপক্ষে বিশ হাজার টাকা পরিশোধিত মূলধন থাকতে হয়।
    ব্যবস্থাপনা, অডিট, পরিদর্শন, বিরোধ নিষ্পত্তি ও অবসায়ন:-
     সমিতির ব্যবস্থাপনা গণতান্তিকভাবে নির্বাচিত কমিটি কর্তৃক পরিচালিত হয়। কোন সমবায় সমিতি নির্বাচন করতে ব্যর্থ হলে জেলা সমবায় অফিসার আইনের আওতায় অন্তর্বতী ব্যবস্থাপনা কমিটি নিয়োগ করেন।
     জেলা সমবায় অফিসার কর্তৃক ক্ষমতাপ্রাপ্ত কোন কর্মচারী বা ব্যক্তি দ্বারা প্রাথমিক সমিতির ব্যবস্থাপনা ও আর্থিক কার্যক্রমের উপর বাৎসরিক নিরিক্ষা সম্পাদন করা হয়।
     সমিতিতে সঙগঠিত যে কোন অনিয়ম জেলা সমবায় অফিসার পরিদর্শন কিংবা তদন্তের মাধ্যমে নিষ্পত্তি করা হয়।
    প্রাথমিক সমিতির নির্বাচনসহ যে কোন সৃষ্ট বিরোধ জেলা সমবায় অফিসারের নিকট দায়ের করা হলে তিনি নিযুক্ত সালিশকারী ন্যায় বিচার, সমতা ও সুবিবেচনা প্রসূতভাবে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে রায় প্রদান করে। রায়ে কেউ সঙক্ষুব্ধ হলে বিভাগীয় সমবায় দপ্তরের উপনিবন্ধক (বিচার) এর নিকট আপীল করতে পারেন। বিরোধ এবঙ আপীলের সাথে ১০০(একশত) টাকার কোর্ট ফি সংযুক্ত করতে হয়।
    প্রাথমিক সমিতি অকার্যকর হলে কিংবা সদস্যগণ সমিতি পরিচালনায় অনাগ্রহী হলে জেলা সমবায় অফিসার সমিতিকে অবসায়ন করতে পারেন। আবার সদস্যদের আগ্রহের কারণে অবসায়ন আদেশ প্রত্যাহর করতে পারেন।
    প্রশিক্ষণ
    কুমিল্লা শহরে উকন্ঠে কোটবাড়ীতে অবস্থিত দেশের শীর্ষ প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ সমবায়, একাডেমী এবং মুক্তাগাছাসহ নয়টি আঞ্চলিক সমবায় প্রশিক্ষণ ইনষ্টিটিউটে সমবায় সমিতির সদস্যদের প্রশিক্ষণ সেবা প্রদন করা হয়।
    জেলা সমবায় কার্যালয়ের ভ্রাম্যমান প্রশিক্ষণ ইউনিট সমিতিতে গিয়ে সদস্য প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে।
    সমবায় অফিদপ্তরের ঢাকাস্থ সদর কার্যালয়, বাংলাদেশ সমবায় একডেমী ও মুক্তাগাছাসহ নয়টি আঞ্চলিক সমবায় প্রশিক্ষণ ইনষ্টিটিউটে অবস্থিত মোট ৩টি/২টি অত্যাধুনিক কম্পিউটার ল্যাব এর মাধ্যমে সদস্য ও সমবায় অধিদপ্তরের কর্মকর্তা/কর্মচারীদের আধুনিক তথ্য প্রযুক্তিগত প্রশিক্ষণ দেয়া হয়ে থাকে।
    অভিযোগ নিষ্পত্তি
    কোন অভিযোগ থাকলে জেলা সমবায় অফিসার এর নিকট দাখিল করলে তা নিষ্পত্তি করা হয়ে থাকে।
    প্রশাসনিক কার্যক্রম
    ১। সংশ্লিষ্ট উপজেলা/ থানায় সমবায় অদিপ্তরের নির্বাহী

ছবি


সংযুক্তি



Share with :

Facebook Twitter